artk
৫ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রোববার ২০ আগস্ট ২০১৭, ১১:০৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম

বিচার বিভাগকে প্রতিপক্ষ বানিয়ে লাভ হবে না: মান্না

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২০৫৭ ঘণ্টা, শুক্রবার ১১ আগস্ট ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ২২৪৭ ঘণ্টা, শুক্রবার ১১ আগস্ট ২০১৭


বিচার বিভাগকে প্রতিপক্ষ বানিয়ে লাভ হবে না: মান্না - রাজনীতি

সরকারকে উদ্দেশ করে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, “বিচার বিভাগকে প্রতিপক্ষ বানাবেন না। প্রতিপক্ষ বানালে আপনাদের লাভ হবে না। দেশেরও ক্ষতি হবে।”

মাহমুদুর রহমান সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী মামলায় সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের দেয়া রায় নিয়ে সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্যের সমালোচনা করেন।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর গুলিস্তানে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) কার্যালয়ে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় মাহমুদুর রহমান এসব কথা বলেন। ‘চলমান রাজনীতিতে যুবসমাজের করণীয়’ শীর্ষক এ সভার আয়োজন করে যুব পরিষদ।

তিনি বলেন, “দেশের সবচেয়ে বড় আশা-ভরসার স্থল সুপ্রিম কোর্ট ও তার আপিল বিভাগকে আওয়ামী লীগ ধমক দিচ্ছে। অক্টোবরের মধ্যে যেতে হবে। না হলে তোমাকে বিদায় করে দেয়ার ব্যবস্থা করব।”

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক সরকারকে উদ্দেশ করে বলেন, “এক চোখে আদা বেচবেন, আরেক চোখে লবণ বেচবেন, সেটা তো হবে না। বিচার বিভাগের স্বাধীনতা যদি বলেন, সেটি স্বাধীনতার মতোই হতে হবে। সংসদ চাইলে বিচারপতিদের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে বিচার করবে, অভিশংসন করবে, বাদ দিয়ে দেবে বা চাকরি খেয়ে দেবে- এমনটা কোথাও নেই।”

সভায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, “প্রধান বিচারপতি ও সাতজন বিচারককে দেশের ১৬ কোটি মানুষের পক্ষ থেকে অভিনন্দন। দেশে আর কেউ যখন সাহস করে কথা বলছে না, মানুষের মনের কথা, প্রাণের কথা, ক্ষোভ-বিক্ষোভের কথা প্রধান বিচারপতির বক্তব্যে বেরিয়ে এসেছে।”

আবদুর রব বলেন, “ডাক্তারের কাছে রোগী গেলে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে যেমন প্রেসক্রিপশন দেন, তেমনি প্রধান বিচারপতিও প্রেসক্রিপশন দিয়েছেন। আপনাদের সার্জারির প্রেসক্রিপশন দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। টোটকা-ফাটকায় আর কাজ হবে না। তা দেখে ঘাবড়ে গিয়েছেন। আপনাদের আসামির কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। আপনারা সংবিধানের, বিচার বিভাগের অসম্মান করেছেন।”

সভায় আরও বক্তব্য দেন জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক, সহসভাপতি তানিয়া রব, বিকল্প ধারা বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাহতাব উদ্দিন প্রমুখ।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত