artk
১৩ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ২৮ জুলাই ২০১৭, ১২:৪৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম

রোজ সকালে ছাতু খেলে সুস্থ থাকবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৯৫৫ ঘণ্টা, বুধবার ১৭ মে ২০১৭


রোজ সকালে ছাতু খেলে সুস্থ থাকবেন - লাইফস্টাইল

আগেকার দিনে যারা শরীরচর্চা করতেন সকালে উঠে তারা ছাতুর শরবত খেতেন। সারা বছর না খেলেও এখনও অনেকেই গরম কালে ছাতুর শরবত খান। কেন ছাতুর এত কদর বলুন তো? জেনে নিন কেন গরমে সত্যিই রোজ ছাতু খাওয়া উচিত।

অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন- ছাতু কী জিনিস? ছাতু চাল, ছোলা, গম বা যব ভেজে ঢেঁকিতে বা মেশিনে গুঁড়া করা হয়। একেই বলে ছাতু। শুধু চালের ছাতু বা গমের ছাতুও হতে পারে। তবে একসঙ্গে সব উপাদান মিশিয়ে ছাতু বানালে তা বেশি সমৃদ্ধ হয়।

ছাতু গরমে শরীর ঠাণ্ডা রাখতে খুবই উপকারী। গরমে তেষ্টা মেটাতে যেমন সাহায্য করে, তেমনই শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে।

ড্রাই-রোস্টিং পদ্ধতিতে তৈরি হওয়ার কারণে ছাতুর মধ্যে সব রকম পুষ্টিগুণই ভরপুর থাকে। ১০০ গ্রাম ছাতুতে থাকে ২০.৬ শতাংশ প্রোটিন, ৭.২ শতাংশ ফ্যাট, ১.৩৫ শতাংশ ফাইবার, ৬৫.২ শতাংশ কার্বোহাইড্রেট, ২.৭ শতাংশ ভুষি, ২.৯৫ শতাংশ ময়শ্চার ও ৪০৬ ক্যালোরি এনার্জি।

ছাতুর মধ্যে থাকা প্রচুর পরিমাণ ইনসলিউবল ফাইবার পেট পরিষ্কার রাখতে খুবই উপকারী। কোলন থেকে ডিটক্সিফাই করে কোষ্ঠকাঠিন্য, অ্যাসিডিটির সমস্যা দূরে রাখে। গরমে সকালে উঠে ছাতু খেলে পেট ঠাণ্ডা থাকে ও ফাঁপে না।

ত্বক উজ্জ্বল ও হাইড্রেটেড রাখতে সাহায্য করে ছাতু। অত্যন্ত পুষ্টিকর হওয়ার কারণে চুলের সমস্যায় ব্যবহার করা যায় ছাতু। হেয়ার ফলিকলে পুষ্টি জোগাতে তা সাহায্য করে।

ছাতু লো-গ্লাইসেমিক ইনডেক্স ফুড। তাই ডায়াবেটিকদের জন্য খুবই উপকারী। গরম কালে সকালে ঠাণ্ডা ছাতু রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করে ছাতু। এর মধ্যে থাকা ফাইবার রক্তের কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণেও কার্যকরী।

নিউজবাংলাদেশ.কম

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য