artk
১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২৯ মে ২০১৭, ৪:২০ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

আ.লীগই আমাদের জোটে চায়: বাহাদুর শাহ

আদিত্য রিমন | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২১১২ ঘণ্টা, সোমবার ১৫ মে ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১২৩৮ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১৬ মে ২০১৭


আ.লীগই আমাদের জোটে চায়: বাহাদুর শাহ - বিশেষ সংবাদ

১৪ দলীয় জোটে যোগ দিতে ইসলামিক ফ্রন্টকে আওয়ামী লীগই প্রস্তাব দিয়েছে বলে দাবি করেছেন দলটির চেয়ারম্যান আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ।

তিনি বলেছেন, “ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ ১৪ দলীয় জোটে যোগ দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেনি বরং নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দীর্ঘদিন আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে আসছেন।”

রোববার বিকেলে নিউজবাংলাদেশের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিম শনিবার বলছেন, আপনারা ১৪ দলীয় জোটে যোগ দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এমন প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেন, “নাসিম ভাই ভুল বলেছেন। আমরা নই, নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরই আমাদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে যোগাযোগ করে আসছেন। এর আগে মোহাম্মদ নাসিমের বাসায় আমাদের সঙ্গে দুইবার বৈঠক হয়েছে জোটে যোগ দেয়ার বিষয়ে। এছাড়া আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। তাহলে বলুন আমরা আগ্রহ দেখিয়েছি না তারা আমাদের ডেকেছে।”

তিনি আরো বলেন, “এর আগে শুক্রবার বেলা ১১টায় আমাদের আমন্ত্রণ করেছিলেন নাসিম ভাই। কিন্তু শুক্রবার জুমার দিন হওয়ায় আমরা বলেছি শনিবারে আসবো। শনিবার বৈঠবে যোগ দিতে আমরা যাই। বৈঠকে আমাদেরকে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয় অন্যদলগুলোর সঙ্গে। বৈঠকে রাশেদ খান মেনন, শিরিন সুলতানা আমাদেরকে প্রশ্ন করেন, অসাম্প্রদায়িক রাজনীতিতে বিশ্বাসী কিনা। আমরা বলেছি, আমরা শুরু থেকেই অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি করে আসছি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী দল আমরা। শুরু থেকে আমরা বিভিন্ন সভা, সমাবেশ ও সেমিনারে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কথা বলে আসছি।”

তাহলে আপনারা কি ১৪ দলীয় জোটে যোগ দিয়েছেন? এ প্রশ্নের জবাবে ইসলামী ফ্রন্টের এ নেতা বলেন, “আমাদের এখনো পরিষ্কার কোনো সিদ্ধান্ত দেয়নি। জোটের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলে এটি ফাইনাল করবেন। আশা করি শিগগিরই ১৪ দলীয় জোটে আমরা অন্তুর্ভুক্ত হবো।”

তিনি আরো বলেন, “এর আগে আমরা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বধীন মহাজোটে ছিলাম। ২০০৭ সালে আমাকে চাঁদপুর-৫ থেকে মনোনয় দেয়া হয়েছিল। যদিও পরে তত্ত্বাধায়ক সরকারের নানা জটিলতার কারণে ওই নির্বাচন হয়নি। ২০০৮ সালের নির্বাচনে মনোনয়ন পাইনি। এ কারণে অনেকদিন আওয়ামী লীগের সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি আমাদের। এরপর ২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি মনোনয়ন চাইলেও দেয়া হয়নি। তাছাড়া ৫ জানুয়ারির নির্বাচন আমার পছন্দ হয়নি।”

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বধীন ১৪ দলীয় জোটে অন্তর্ভুক্ত হতে যাচ্ছে ‘ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ’ নামের দলটি।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এআর

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য