artk
১২ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার ২৭ জুলাই ২০১৭, ৬:৩৯ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

রাজস্ব বিষয়ে অভিযোগ সরাসরি জানানো যাবে এনবিআর চেয়ারম্যানকে

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১২৩৯ ঘণ্টা, শুক্রবার ২১ এপ্রিল ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৯৪০ ঘণ্টা, শুক্রবার ২১ এপ্রিল ২০১৭


রাজস্ব বিষয়ে অভিযোগ সরাসরি জানানো যাবে এনবিআর চেয়ারম্যানকে - অর্থনীতি

দেশের যে কোনও অঞ্চল থেকে যে কোনও নাগরিক রাজস্ব সংক্রান্ত যে কোনও পরামর্শ সরাসরি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমানকে জানাতে পারবেন। সকলের জন্য এ সুযোগ অবারিত করতে একটি আলাদা ই-মেইল আইডি খুলেছেন তিনি। পাশাপাশি আয়কর, ভ্যাট ও কাস্টমস বিভাগের ফিডব্যাক মেইলেও রাজস্ব পরামর্শ দেয়া যাবে। এনবিআরের সিনিয়র তথ্য অফিসার সৈয়দ এ মু’মেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, রাজস্ব সংক্রান্ত যেকোনও পরামর্শ জানাতে এনবিআর চেয়ারম্যানের ই-মেইল (chairman@nbr.gov.bd) সবার জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি অংশীজন ও করদাতাদের সঙ্গে সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় এবং রাজস্ব সংক্রান্ত পরামর্শ, হয়রানি, অভিযোগ ও সমস্যা জানানোর লক্ষ্যে ইতোমধ্যে আয়কর, কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগের জন্য চালুকৃত তিনটি ফিডব্যাক ই-মেইলও খোলা থাকবে। এসব ই-মেইলে ইতোমধ্যে করদাতা ও অংশীজনরা ব্যাপক সাড়া দিয়েছেন।

এ বিষয়ে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন, “উন্নয়নের মূল ভিত্তি অভ্যন্তরীণ সম্পদ। মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোলস (এমডিজি) থেকে দেশ এখন সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোলরের (এসডিজি) দিকে ধাবিত হচ্ছে।”

তিনি বলেন, “সরকারের রূপকল্প-২০২১ ও রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়ন এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে প্রচুর অভ্যন্তরীণ সম্পদ তথা রাজস্ব প্রয়োজন। এনবিআর উন্নয়নের অক্সিজেন রাজস্ব আহরণে সকলের সহযোগিতা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। তাই এখন থেকে রাজস্ব সংক্রান্ত যেকোনও পরামর্শ সরাসরি আমাদের জানানোর সুযোগ সবার জন্য অবারিত করা হলো।”

নজিবুর রহমান বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবসায়ীদের ওপর করের বোঝা না বাড়িয়ে করনেট সম্প্রসারণে কাজ করছে এনবিআর। আমরা করনেট সম্প্রসারণ ও রাজস্ব আহরণে উপযুক্ত পরিবেশ নিশ্চিত করার সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। রাজস্ব-বান্ধব সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠায় সম্মানিত করদাতা ও অংশীজনরা রাজস্ব সংক্রান্ত যেকোনও পরামর্শ আমাদের ই-মেইলে জানাতে পারবেন।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএজেড/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত