artk
১০ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২৪ এপ্রিল ২০১৭, ৫:৩৪ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

শিকারের পেটে শিকারি

বিদেশ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১২৩৯ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ২০ এপ্রিল ২০১৭


শিকারের পেটে শিকারি - বিদেশ

আফ্রিকা মানেই যেন শুধু শিকার আর শিকারির গল্প। প্রায় সকল গল্পেই শিকারির জয় জয়কার। কিন্তু এবার যেন পাশার ছক উল্টে গেল দক্ষিণ আফ্রিকার এক শিকারির ক্ষেত্রে। বিখ্যাত এই শিকারির জায়গা হলো শেষমেষ কুমির নামক শিকারের পেটে।
ভেনেজুয়েলায় গণবিক্ষোভ চলাকালীন নিহত ৩
স্কট ভ্যান জেল নামের ওই দক্ষিণ আফ্রিকান শিকারিকে মূলত গত সপ্তাহ থেকেই পাওয়া যাচ্ছিল না। জিম্বাবুয়ের সাফারিতে তিনি গিয়েছিলেন শিকার করতে। তার সঙ্গে ছিল পোষা একদল কুকুর আর একজন জিম্বাবুয়ের স্থানীয় ট্র্যাকার। জিম্বাবুয়ের এই ট্র্যাকাররা মূলত শিকারি এবং সাফারিতে শিকার করতে আসা বিদেশিদের সঙ্গে অর্থের বিনিময়ে কাজ করে।

বিশ্বাস করা হয় যে, ভ্যান জেল এবং তার শিকারি ট্র্যাকার ট্রাক রেখে পায়ে হেটে ভিন্ন ভিন্ন দিকে গিয়েছিলেন। একটা সময় কুকুরগুলো ভ্যান জেলকে না পেয়ে ক্যাম্পে ফিরে আসে। পরবর্তীতে উদ্ধারকারী দল এবং হেলিকপ্টার দিয়ে খুঁজে দেখা হয় পুরো এলাকায়। খুঁজতে গিয়ে একটা সময় তার পায়ের ছাপ পাওয়া যায় নদীর ধারে।

উদ্ধারকারী দলের সদস্য সাকি লরেন্স পুলিশকে জানান যে, খুব সম্ভবত নাইল নদীর কুমির তাকে খেয়ে ফেলেছে। অবশ্য ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থল থেকে প্রাপ্ত ভ্যানের শরীরের কিছু অংশ এবং অন্যান্য জিনিস পরীক্ষা করে দেখছেন।

শিকারি ভ্যান জেল তার জীবনে অনেক জায়গায় গিয়েছিলেন শিকারের জন্য। বতসোয়ানায় হাতি শিকারের জন্যও তিনি গিয়েছিলেন বলে জানায় দ্য টেলিগ্রাফ। তার শিকারের তালিকায় আছে মহিষ, গণ্ডার, সিংহ, চিতাবাঘ এবং হরিন।

উল্লেখ্য, জিম্বাবুয়ের নাইল নদীর প্রান্তে এর আগেও মানুষকে কুমির খেয়ে ফেলার ঘটনা ঘটেছে। গত বছর ১৩ বছর বয়সী একটি শিশুকেও কুমির খেয়ে নেয়। শিশুটি নাইল নদীতে নৌকার উপর বসে মাছ ধরছিল।

নিউজবাংলাদেশ.কম/কেকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য