artk
১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার ৩০ মে ২০১৭, ৭:০৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম

বিএনপি এলে দেশে-বিদেশে আস্থা বাড়বে নির্বাচনে

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২০০২ ঘণ্টা, বুধবার ১৯ এপ্রিল ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৯৩৮ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ২০ এপ্রিল ২০১৭


বিএনপি এলে দেশে-বিদেশে আস্থা বাড়বে নির্বাচনে - রাজনীতি
ফাইল ফটো

ঢাকা: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ ফাঁকা মাঠে গোল দিতে চায় না। আশা করি আগামী নির্বাচনে অংশ নিবে বিএনপি। তারা অংশ নিলে দেশে -বিদেশে নির্বাচনের আস্থা ও ইমেজ বাড়বে।

বুধবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, “বিএনপি নির্বাচনের আগে শর্ত আরোপ করার সুযোগ পেয়েছে। তারা যদি বলে ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ নাই, এটা নির্বাচন কমিশন অব্যশই তৈরি করবে। তারা শর্ত দিচ্ছে নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের। কিন্তু তা সংবিধানের কোথাও নেই। নির্বাচনে সেনাবাহিনীকে কোথাও নামানোর প্রয়োজন হলে নির্বাচন কমিশন তা করবে।”

দলের সাংগঠনিক সম্পাদকরা বিভিন্ন জেলার সাংগঠনিক অবস্থা ও সমস্যা নিয়ে রিপোর্ট দিয়েছেন। রিপোর্টে তারা সমস্যা সমাধানের জন্য কিছু পরার্মশও দিয়েছেন বলে যোগ করেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি আরও বলেন, “কিছু কিছু জেলা ও উপজেলায় সমস্যা আছে। সেই সব জেলার নেতাদের ঢাকায় ডেকে সমস্যা সমাধান করা হবে। সমস্যাপূর্ণ জেলাগুলোর মধ্যে ৪টি জেলার নেতাদেরকে আগামী ২৩, ২৪, ২৫ ও ২৭ এপ্রিল ঢাকায় ডাকা হয়েছে। তাদের সঙ্গে বৈঠক করে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করা হবে “

কাদের বলেন, “আমাদের দলে কিছু জায়গায় কিছু সমস্যা আছে। আগামী নির্বাচনের আগে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলকে সুশৃঙ্খল করা হবে নেত্রীর নির্দেশের মাধ্যমে।”

হাওর এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন সরকার কিছু করেনি। এর জবাবে কাদের বলেন, “তিনি কিছু উদ্ভট কথা বলেছেন। দেশের রাষ্ট্রপতি ৩ দিন যাবত হাওর এলাকায়। ত্রাণমন্ত্রী এখনো সেখানে অবস্থান করছেন। আগামীকাল মাহবুব উল আলম হানিফের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি টিম সেখানে যাবে। স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে না আসা পর্যন্ত দলের ও সরকারের কার্যক্রম চলতে থাকবে। গত ১ মাস সরকার হাওর এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। আর হঠাৎ বিএনপি একদিন হাওর এলাকায় গিয়ে ফটোসেশন করে কৃতিত্ব নিতে চাচ্ছে।” বিএনপি সেখানে ত্রাণ নয় ফটোসেশন করতে গিয়েছেন বলেও দাবি করেন তিনি।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, “সিলেটে আমি ২৭ মিনিট বক্তব্য দিয়েছি। কিন্তু সাংবাদিকরা তা না লিখে শেষের দিকের কাউয়ার বক্তব্যের কথা লিখেছেন। কাউয়া, ফার্মের মুরগি এগুলো মূখ্য বিষয় নয়, এটা গৌণ বিষয়।”

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব উল আলম হানিফ, আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, এনামুল হক শামীম, আবদুস সোবহান গোলাপ, অসিম কুমার উকিল, সুজিত রায় নন্দী, আবদুস সাত্তার, দেলওয়ার হোসেন, সামসুর নাহার চাপা, রোকেয়া বেগম, এস এম কামাল, বিপ্লব বড়ূয়া প্রমুখ।

 

নিউজবাংলাদেশ.কম/এআর/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত