artk
৩ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বুধবার ১৮ অক্টোবর ২০১৭, ১:৩১ অপরাহ্ন

শিরোনাম

সম্মানজনকভাবে বাঁচতে চান নারী মুক্তিযোদ্ধারা

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২২২৫ ঘণ্টা, শুক্রবার ৩১ মার্চ ২০১৭


সম্মানজনকভাবে বাঁচতে চান নারী মুক্তিযোদ্ধারা - নারী

ঢাকা: জীবনের শেষ প্রান্তে এসে নারী-মুক্তিযোদ্ধাদের একটাই চাওয়া। সরকার তাদের স্বীকৃতিসহ মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নির্ধাতির সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেবে। যেন শেষ জীবনে একটু সুখে-শান্তিতে জীবন যাপন করতে পারেন।

শক্রবার সন্ধায় রাজধানীর মহিলা সম্মিলিত ৭১ ফাউন্ডেশন আয়োজিত বীর সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে এমন চাওয়ার কথা ব্যক্ত করেন নারী মুক্তিযোদ্ধারা।

বীর প্রতীক খেতাবপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা তারামন বিবি তাদের জীবনে ৭১ সালে ঘটে যাওয়া দিনগুলোর কথা বর্ণনা করতে গিয়ে এক পর্যায়ে বলেন, “সরকারের কাছে আমরা শেষ ইচ্ছা হলো আমাকে যেন বিদেশে নিয়ে একবার চিকিৎসা করানো হোক। যেন জীবনের শেষদিনগুলো শান্তিতে থাকতে পারি। আর কিছু চাই না।”

আরেক নারী-মুক্তিযোদ্ধা জ্ঞানো বালা বর্মণী কথা বলতে গিয়ে কাদঁতে কাদঁতে বলেন, “এ বয়সে এসো এখনো অন্যের বাড়িতে কাজ করে খেতে হচ্ছে। নিজের বাড়ি-ঘর তো কিছু নেই। অন্যবাড়িতে থাকতে হচ্ছে আমাকে। আমি চাই, সরকার আমাকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি দেবে। সরকারিভাবে মুক্তিযোদ্ধার সব ধরনের সাহায্য-সহযোগিতা আমাকে দেয়া হবে। এটাই চাই, আর কিছু চাই না। এভাবে উপস্থিত সকল মুক্তিযোদ্ধারা তাদেও চাওয়া-পাওয়ার কথা ব্যক্ত করেন।

এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, “বাংলাদেশের জঙ্গিবাদের সঙ্গে দেশি ও আন্তর্জাতিক শক্তি জড়িত। ৭১ সালের পরাজিত শক্তি দোসরা কখনো শিবির, কখনো আনসার আল ইসলাম, কখনো জঙ্গি হিসেবে এদেশে আর্বিভূত হচ্ছে। এরা দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা নষ্ট করতে চাইছেন।”

তিনি আরো বলেন, “জঙ্গিদের আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি। আশা করি, সামনের দিনগুলোতে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবো। জঙ্গিবাদ শুধু বাংলাদেশের নয়, এখন সারাবিশ্বে জঙ্গিবাদ চলেছে। এটা আর্ন্তজাতিকভাবে একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

অনুষ্ঠানে নারী মুক্তিযোদ্ধা তারামন বিবি, জ্ঞানো বালা বর্মণী ছাড়াও নারী মুক্তিযোদ্ধ নুরজাহান কাকন বিবি, নারী মুক্তিযোদ্ধ সৈয়দ ওবায়দুন নাহার, নারী মুক্তিযোদ্ধ বুলবুল মহলানবীশ, নারী মুক্তিযোদ্ধ যোগমায়া মালো, নারী মুক্তিযোদ্ধ ডা. সারাহ বানু শুচি, নারী মুক্তিযোদ্ধ বেগম আইভি, বিদেশি মুক্তিযোদ্ধা নোরা শরিফদের সম্মাননা দেয়া হয়।

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান খালেদ শওকত আলী সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন- মুক্তিযোদ্ধা কর্নেল (অব.) শওকত আলী, মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ বেগম প্রমুখ।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এআর/এসডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত