artk
৬ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, শনিবার ২১ অক্টোবর ২০১৭, ৭:১৮ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

কুমিল্লা নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করতে হবে: দুদু

সিনিয়র রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৮৩৭ ঘণ্টা, সোমবার ২০ মার্চ ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৮৪৭ ঘণ্টা, সোমবার ২০ মার্চ ২০১৭


কুমিল্লা নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করতে হবে: দুদু - রাজনীতি
শামসুজ্জামান দুদু : ফাইল ফটো

ঢাকা: অবিলম্বে কুমিল্লা সিটি করপোরেসন কুসিক নির্বাচনে সেনা মোতায়নের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।

তিনি বলেছেন, “ছাত্রলীগের ক্যাডার, জনতার মঞ্চের নেতা প্রধান নির্বাচন কমিশনার নুরুল হুঁদার অধীনে আগামী ৩০ মার্চ কুসিক নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে এ কথা দেশের কোনো পাগলও বিশ্বাস করে না। তাই সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে অনতিবিলম্বে কুসিকে সেনা মোতায়ন করতে হবে।’’

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ সম্মিলিত গণতান্ত্রিক জোট আয়োজিত কুসিক নির্বাচনে সেনা মোতায়ন চাই এবং নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

কুসিক নির্বাচনে বিএনপির কর্মী সমর্থকদের সরকারি লোকজন এবং প্রশাসন বাধা দিচ্ছে দাবি করে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘‘৩০ তারিখের নির্বাচনে কুমিল্লাবাসী ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে চায়, কিন্তু সেই পরিবেশ এখন পর্যন্ত কুমিল্লাতে নেই। বিএনপির প্রার্থী সাক্কুর কর্মী-সমর্থকরা প্রচারণায় গেলেই কোনো রকম অভিযোগ ছাড়াই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের গ্রেপ্তার করে দৌড়ের উপর রাখছে। এইভাবে একটি স্বাভাবিক নির্বাচন হতে পারে না।’’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে ছাত্রদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, ‘‘দেশের চলমান সংকটের সমাধান আপনি (প্রধানমন্ত্রী) চান কিনা সেটা আপনাকেই নির্ধারণ করতে হবে। সমাধান চাইলে জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। আর সময় চলে গেলে আলোচনার পরিবেশ থাকবে না। তখন দেশে ১৯৬৯ সালের মত গণঅভ্যূত্থান হবে।’’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান মনিরের সভাপতিত্বে এবং এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মঞ্জুর হোসেন ঈশার সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন- ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য রফিক শিকদার, জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন ও সাংস্কৃতিক দলের সভাপতি হুঁমায়ন কবির বেপারী প্রমুখ।

নিউজবাংলাদেশ.কম/আরআর/এমবি/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য