artk
১৮ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ০১ মে ২০১৭, ৮:২১ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি ধরে রাখতে ভুল কবিতা

নাজিব মুবিন, বাকৃবি সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১০৩৫ ঘণ্টা, শনিবার ১৮ মার্চ ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৪১৮ ঘণ্টা, শনিবার ১৮ মার্চ ২০১৭


বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি ধরে রাখতে ভুল কবিতা - শিক্ষাঙ্গন

বাকৃবি (ময়মনসিংহ): বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধায় ও তাঁর স্মরণে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) ২০১২ সালের ১ আগস্ট স্থাপন করা হয় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি চত্বর।

২০১৩ সালের ৩ জানুয়ারি স্মৃতি চত্বরের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্থাপনের পর থেকেই এ স্মৃতি চত্বরে শ্রদ্ধা জানিয়ে আসছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। কিন্তু এ চত্বরের নানান ধরনের ভুল এখন পর্যন্ত কারও চোখে পড়েনি। এমনকি প্রশাসনও এ বিষয়ে জানে না কিছুই।

অন্নদাশঙ্কর রায় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে তাঁর কবিতায় লিখেছিলেন, ‘যতকাল রবে পদ্মা যমুনা গৌরী মেঘনা বহমান/ ততকাল রবে কীর্তি তোমার শেখ মুজিবুর রহমান।’ কিন্তু চত্বরে লেখা হয়েছে, ‘যতদিন রবে পদ্মা, মেঘনা,/ গৌরী, যমুনা বহমান/ ততদিন রবে কীর্তি তোমার/ শেখ মুজিবুর রহমান।’

রাজধানীতে চেকপোস্টে হামলার চেষ্টা, র‌্যাবের গুলিতে যুবক নিহত

এ লেখায় কয়েক জায়গায় গড়মিল ও বেশ কিছু বানান ভুল রয়েছে। কবিতাটিতে ‘যতকালের’ জায়গায় ‘যতদিন’, ততকালের জায়গায় ‘ততদিন’ লেখা হয়েছে। কবিতায় 'যমুনা'র জায়গায় ‘মেঘনা’ আর ‘মেঘনা’র জায়গায় ‘যমুনা’ লেখা হয়েছে। কবিতায় দুই লাইনকে চার লাইন বানানো হয়েছে। সেই সঙ্গে ওই কবিতার প্রথম দুই লাইনে, কমার (,) ব্যবহার না থাকলেও কবিতায় তা ব্যবহার করা হয়েছে। আবার কবিতাটি যে বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু কবি অন্নদাশঙ্কর রায় রচিত সেটির কোনো উল্লেখ নেই।

এছাড়া ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক কৃষিবিদদের প্রথম শ্রেণীর পদপর্যাদা ঘোষণার ঐতিহাসিক স্থান’ লাইনটিতে বাংলা একাডেমি বানানের নিয়ম অনুসরণ না করে ‘শ্রেণি’ বানান ‘শ্রেণী’ লেখা হয়েছে এবং ‘কৃষিবিদ ক্লাশ ওয়ান’ লাইনে ‘ক্লাস’ বানানটি লেখা হয়েছে ‘ক্লাশ’।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আলী আকবর বলেন, “বিষয়টি আমাদের নজরে আসেনি। তবে এখন আমরা যাচাই-বাছাই করে দেখবো।’’

বাংলাদেশের প্রখ্যাত লেখক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের এমিরিটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেন, “কোনোভাবেই কবিতাটি ভুলভাবে উপস্থাপন করা ঠিক হয়নি। বিশ্বব্যাপী উদ্ধৃত ব্যবহারের নিয়ম হচ্ছে যেভাবে লেখা রয়েছে, সেভাবেই ব্যবহার করতে হবে। সুতরাং আমি আশা করব, কর্তৃপক্ষ দ্রুত সময়ের মধ্যে ভুলটি সংশোধন করে নেবেন।”

উল্লেখ্য, কৃষির গুরুত্ব অনুধাবন করে ১৯৭৩ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি বাকৃবিতে এক সভায় কৃষিবিদদের প্রথম শ্রেণির পদমর্যাদার ঐতিহাসিক ঘোষণা দেন। এরপর থেকে কৃষিবিদরা প্রথম শ্রেণির পদমর্যাদা পান। ঐতিহাসিক এ ঘটনাকে স্মরণ করে রাখতে বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্মাণ করা হয় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি চত্বর।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনএম/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত