artk
৬ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭:৪২ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

নির্বাচনে ইসি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরপেক্ষ আচরণ চায় আ. লীগ

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২১২৫ ঘণ্টা, বুধবার ১১ জানুয়ারি ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১০৪২ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ১২ জানুয়ারি ২০১৭


নির্বাচনে ইসি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরপেক্ষ আচরণ চায় আ. লীগ - রাজনীতি

ঢাকা: সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরপেক্ষ আচরণ চায় আওয়ামী লীগ। সেই সঙ্গে সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আরো ৯টি সুপারিশ দিয়েছে দলটি।

নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে বুধবার বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে বৈঠকে আওয়ামী লীগ এ সুপারিশগুলো পেশ করে। ১৯ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈঠকের পর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে বিভিন্ন সুপারিশের পাশাপাশি সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য ‘অতীব গুরুত্বপূর্ণ’ বিষয়গুলো তুলে ধরেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সেগুলো হলো-

১. একটি স্বাধীন ও কার্যকর নির্বাচন কমিশন।

২. নির্বাচনকালীন সময়ে নির্বাহী বিভাগের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/সংস্থার দায়িত্বশীলতা।

৩. নির্বাচন কমিশন সচিবালয় ও এর মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দায়িত্বশীল ও নিরপেক্ষ আচরণ।

৪. ছবিযুক্ত নির্ভুল ভোটার তালিকা এবং ভোটগ্রহণের দিন নির্বাচন কেন্দ্রের সার্বিক নিরাপত্তা।

৫. নির্বাচন পরিচালনায় বেসরকারি সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পরিবর্তে কেবলমাত্র প্রজাতন্ত্রের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রিসাইডিং অফিসার থেকে পোলিং অফিসার পদে নিয়োগ করা।

৬. আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত সদস্যদের নিরপেক্ষ ও দায়িত্বশীল আচরণ।

৭. দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক থেকে শুরু করে মিডিয়া ও সিভিল সোসাইটির সদস্যদের নির্মোহ তৎপরতা।

৮. নির্বাচনে পেশিশক্তি ও অর্থের প্রয়োগ বন্ধ এবং ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়সহ সব পর্যায়ের ভোটারের অবাধ ভোটদানের সুযোগ নিশ্চিত করা।

৯. নির্বাচনের পূর্বে ও পরে এবং নির্বাচনের দিন ভোটারসহ সর্বসাধারণের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

১০. নির্বাচনকালীন প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ নির্বাচন পরিচালনার জন্য আবশ্যকীয় সক সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানকে নির্বাচন কমিশনের তত্ত্বাবধানে ন্যস্ত করা।

১১. নির্বাচনকালীন সরকারের কর্মপরিধি কেবলমাত্র আবশ্যকীয় দৈনন্দিন কার্যাবলির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকা।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এআর/একিউএফ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত