artk
৪ পৌষ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭, ৭:১৫ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

নারায়ণগঞ্জে যুবদলের মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ, আটক ৪

জেলা সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৭৪৯ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ০৫ জানুয়ারি ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৮০২ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ০৫ জানুয়ারি ২০১৭


নারায়ণগঞ্জে যুবদলের মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ, আটক ৪ - জাতীয়

নারায়ণগঞ্জ: ৫ জানুয়ারি উপলক্ষে বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচি অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল আয়োজিত মিছিলে লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। সেই সঙ্গে কাউন্সিলর ও মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। তিনি বৃহস্পতিবার সকালেই কাউন্সিলর হিসেবে শপথ নেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ৩টার দিকে শহরের মণ্ডলপাড়া পুল এলাকা থেকে খন্দকার খোরশেদের নেতৃত্বে একটি মিছিল বের করে মহানগর যুবদল। মিছিলটি ডিআইটি বাণিজ্যিক এলাকায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে আসার পথে গুলশান হলের সামনে পুলিশি বাধার মুখে পড়ে। লাঠিচারর্জে আহত হন যুবদল নেতা জুলহাস, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদুর রহমান রশুসহ অন্তত ১০ জন।

এসময় খোরশেদসহ চারজনকে আটক করে পুলিশ। তারা হলেন মহানগর যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রানা মুজিব, যুবদল নেতা আলামিন খান ও বাদশা মিয়া।

খোরশেদ গণমাধ্যমে অভিযোগ করেন, পুলিশ তাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বিনা উস্কানিতে লাঠিচার্জ করেছে।

একই সময়ে বিএনপি কার্যালয়ের নিচে নেতাকর্মীরা জড়ো হলে সেখানেও লাঠিচার্জ করে পুলিশ। এতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবদলের সহ সভাপতি মঞ্জুরুল আলম মুছা আহত হন। ছত্রভঙ্গ হয়ে যান নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত পরাজিত প্রার্থী অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খানসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

সাখাওয়াত হোসেন বলেন, “৫ জানুয়ারি গণতন্ত্র হত্যা দিবস উপলক্ষে আমাদের কর্মসূচি থেকে বিনা উস্কানিতে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ আবারও প্রমাণ করলো, আসলেই আজকের দিনটিতে কীভাবে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে। আমার দিনটিকে গণতন্ত্রের কালোদিন আখ্যা দিয়ে এ গ্রেপ্তারের নিন্দা ও তাদের মুক্তি দাবি করছি।”

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরফুদ্দিন আহমেদ বলেন, “যুবদলের মিছিল থেকে শহরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করা হলে মিছিলটিকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়। এসময় কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে।”

নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, “পুলিশের কাজে বাধা দেয়ায় চারজনকে আটক করা হয়।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসএসএস/একিউএফ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত