artk
৭ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, শনিবার ২০ জানুয়ারি ২০১৮, ১:০১ অপরাহ্ন

শিরোনাম

‘খালেদার গাড়িবহরে হামলাকারীরা ছাত্রলীগ-যুব লীগের ক্যাডার’

জেলা সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৮৪৯ ঘণ্টা, রোববার ২৯ অক্টোবর ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ২১৫৭ ঘণ্টা, রোববার ২৯ অক্টোবর ২০১৭


‘খালেদার গাড়িবহরে হামলাকারীরা ছাত্রলীগ-যুব লীগের ক্যাডার’ - রাজনীতি

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলাকারীরা সরকারি দল আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ অথবা যুব লীগের ক্যাডার বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, “আমরা এখন পর্যন্ত পত্রিকায় দেখলাম, ছবিতে দেখলাম, এরা চিহ্নিত। খুব স্পষ্ট করে বোঝা যাচ্ছে, ছাত্রলীগ-যুব লীগের ক্যাডাররা যে এটা করেছে, এটা পত্র-পত্রিকায় এসেছে গেছে। তাদের আইডেনটিটি এসে গেছে।”

খালেদা জিয়ার গাড়িবহর রোববার চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজারের পথে রওনা হওয়ার আগে সকালে দুটি হোটেলে আহত সংবাদকর্মীদের দেখতে যান মির্জা ফখরুল। সেখানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এর আগে চট্টগ্রামে রাত কাটিয়ে রোববার বেলা সোয়া ১২টার দিকে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সোমবার উখিয়ার বালুখালী, বোয়ালমারা ও জামতলী রোহিঙ্গা শিবিরে ত্রাণ বিতরণের পরিকল্পনা রয়েছে তার।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, “এ ঘটনাগুলোকে যখনই সরকার ডাউন প্লে করে বা অস্বীকার করতে যায়, তখন এটা স্পষ্ট হয়ে যায় যে তারাই এর সঙ্গে জড়িত। আপনাদের (গণমাধ্যম) ওপর আক্রমণ হল, ম্যাডামের ওপর আক্রমণ হল, আমার ওপরও আক্রমণ হয়েছিল- তাহলে তো আর কিছুই বাকি থাকল না।”

অবিলম্বে ওই হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানান তিনি।

তিনি বলেন, “এসব বিষয় যারা প্রচার করতে চায়, তাদেরকেও সহ্য করতে পারছে না। একদলীয় শাসনের এর চেয়ে বড় নজির কী হবে?”

সংবাদকর্মীদের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “আপনারা সব সময় নিরপেক্ষ থাকেন। সব রকম ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেন। আপনাদের কোনো দল নেই, আপনারা সত্যকে তুলে ধরতে চান। সেই অধিকারটুকু যদি আপনারা হারিয়ে ফেলেন, তাহলে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা তো আমরা দেখতে পাচ্ছি না।”

ঢাকা থেকে কক্সবাজারে যাওয়ার পথে শনিবার দুপুরে ফেনীতে যাত্রাবিরতি করার সূচি ছিল খালেদা জিয়ার। ফেনীতে ঢোকার আগে চৌদ্দগ্রামের সীমানায় মোহাম্মদ আলী বাজারে হামলার মুখে পড়ে তার গাড়িবহর।

খালেদা জিয়ার গাড়ি পেরিয়ে যাওয়ার পর একদল যুবক লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালালে গণমাধ্যমকর্মীদের বাহনসহ বহরের অন্তত ৩০টি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সাংবাদিক পরিচয় দেওয়ার পরও কয়েকজন গণমাধ্যমকর্মী মারধরের শিকার হন।

ওই হামলায় আওয়ামী লীগ কর্মীদের জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে ক্ষমতাসীন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি ‘পরিকল্পিতভাবে ওই ঘটনা ঘটিয়ে’ এখন সরকারের ওপর দোষ চাপাচ্ছে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য