artk
৭ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ২০ এপ্রিল ২০১৮, ৬:৫১ অপরাহ্ন

শিরোনাম

শিল্পপার্ক নির্মাণে প্লট পাচ্ছে বিজিএপিএমইএ

জেলা সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৮১৯ ঘণ্টা, বুধবার ১৩ জানুয়ারি ২০১৬ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৮২৮ ঘণ্টা, বুধবার ১৩ জানুয়ারি ২০১৬


শিল্পপার্ক নির্মাণে প্লট পাচ্ছে বিজিএপিএমইএ - অর্থনীতি

ঢাকা: চীন সরকারের সহযোগিতায় গড়ে উঠছে মুন্সিগঞ্জের বাউশিয়ার গার্মেন্টস্ শিল্পপার্ক। এতে বাংলাদেশ গার্মেন্টস্ অ্যাক্সেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএপিএমইএ) জন্য প্লট বরাদ্দ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

এছাড়া, ব্যবসায়ী সংগঠনটির জন্য একটি পূর্ণাঙ্গ ইন্সটিটিউট ও টেস্টিং ল্যাবরেটরি স্থাপন করতে শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে জায়গা বরাদ্দ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, প্রকল্পটি তৈরি পোশাক কারখানা মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ’র উদ্যোগে তৈরি করা হচ্ছে।

বুধবার বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে চারদিনব্যাপী তৈরি পোশাকশিল্পের আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ ঘোষণা দেন। এতে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। প্রদর্শনী চলবে শনিবার পর্যন্ত।

গার্মেন্টস বাংলাদেশ ২০১৬, ইয়ার্ন অ্যান্ড ফেব্রিক সোর্সিং ফেয়ার ও গ্যাপেক্সপো শীর্ষক এ তিন প্রদর্শনীতে ৩০টি দেশের তিনশরও বেশি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, “এখাতে আধুনিক শিল্প-কারখানা গড়ে তুললে, তৈরি পোশাকের পাশাপাশি গার্মেন্টস্ এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং খাতেও বিপুল পরিমাণ রপ্তানি আয় করা সম্ভব হবে। এ লক্ষ্যে যত্রতত্র কারখানা স্থাপন না করে, পরিকল্পিতভাবে পরিবেশবান্ধব শিল্প গড়ে তুলতে হবে। ইতোমধ্যে গার্মেন্টস্ শিল্পের জন্য চীনের সহযোগিতায় বিজিএমইএ মুন্সিগঞ্জের বাউশিয়ায় একটি গার্মেন্টস্ শিল্পপার্ক স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। এ শিল্পপার্কে অ্যাক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পের জন্য বেশ কিছু প্লট বরাদ্দ দেয়া হবে। এর পাশাপাশি একটি আধুনিক ও পরিবেশবান্ধব অ্যাক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পখাত গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় কাজ করছে। এ শিল্পের জন্য একটি পূর্ণাঙ্গ ইন্সটিটিউট ও টেস্টিং ল্যাবরেটরি স্থাপন করতে শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে জায়গা বরাদ্দ দেয়া হবে। এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যে বিসিককে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। খুব শীঘ্রই এর অগ্রগতি দৃশ্যমান হবে বলে আমি আশা করছি।”

অনুষ্ঠানে এ খাতের উদ্যোক্তারা গার্মেন্টস্ অ্যাক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পের উদ্যোক্তারা বিভিন্ন সময় এ শিল্পকে এসএমই শিল্পখাতের অন্তর্ভুক্ত করে সরকারের নীতিসহায়তা ও পৃষ্ঠপোষকতা বাড়ানোর দাবি জানায়।

এর প্রসঙ্গে শিল্পমন্ত্রী বলেন, “গার্মেন্টস্ অ্যাক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পের উদ্যোক্তারা বিভিন্ন সময় এ শিল্পকে এসএমই শিল্পখাতের অন্তর্ভুক্ত করে সরকারের নীতিসহায়তা ও পৃষ্ঠপোষকতা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন। রপ্তানিমুখী শিল্প হিসেবে প্রণোদনা বৃদ্ধি এবং এ শিল্পকে অগ্রাধিকার শিল্পখাত হিসেবে নতুন শিল্পনীতিতে অন্তর্ভুক্ত করার কথা বলেছেন। নতুন জাতীয় শিল্পনীতিতে এসব দাবি গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করা হবে।”

তৈরি পোশাক খাত নিয়ে সরকারের কার্যক্রম সম্পর্কে তিনি জানান, ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণ আমাদের সরকারের রাজনৈতিক অঙ্গীকার। এ অঙ্গীকার পূরণের জন্য আমরা রপ্তানি প্রবৃদ্ধির পাশাপাশি আমদানি বিকল্প পণ্য উৎপাদন এবং উৎপাদিত পণ্যে মূল্য সংযোজনের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছি। এ লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় গার্মেন্টস অ্যাক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পখাতের উন্নয়নে কাজ করছে। এ শিল্পখাতে দক্ষ জনবল সৃষ্টিসহ ক্যাপাসিটি বিল্ডিং এর জন্য শিল্প মন্ত্রণালয় এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহযোগিতায় বাংলাদেশ ইন্সপায়ার্ড প্রজেক্টের আওতায় বিজিএপিএমইএ একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

এ প্রকল্পের আওতায় দেশে গার্মেন্টস অ্যাক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্পের জন্য একটি টেস্টিং ল্যাবরেটরি স্থাপন করা হবে। এছাড়া একটি গার্মেন্টস অ্যাক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং ইন্সটিটিউট স্থাপনের জন্য সমীক্ষা প্রতিবেদন তৈরির কর্মসূচি রয়েছে। এসব কর্মসূচি বাস্তবায়ন হলে এ শিল্পখাতের উৎপাদিত পণ্যের গুণগতমান এবং জনবলের দক্ষতা বৃদ্ধি পাবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে এগিয়ে আসায় আমি বিজিএপিএমইএ এর নেতৃবৃন্দের প্রশংসা করছি।  

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিজিএপিএমইএ’র প্রেসিডেন্ট রাফেজ আলম চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান এম পি, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক, এফবিসিসিআইয়ের প্রথম সহসভাপতি শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন)। এছাড়া গার্মেন্টস্ এক্সেসরিজ শিল্প উদ্যোক্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

জাকারিয়া ট্রেড অ্যান্ড ফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল, এএসকে ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন প্রাইভেট লিমিটেড এবং বাংলাদেশ গার্মেন্ট অ্যাকসেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েসন (বিজিএপিএমইএ) সম্মিলিতভাবে প্রদর্শনীর আয়োজন করছে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/জেএস/কেজেএইচ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য